Start Planning
জাতির পিতার জন্মবার্ষিকী

জাতির পিতার জন্মবার্ষিকী 2021, 2022 এবং 2023

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে আধুনিক বাংলাদেশের পিতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়। শেখ মুজিবের জীবন ও প্রভাব প্রতিফলিত করার একটি সুযোগ হিসাবে প্রতিবছর তার জন্মদিন উদযাপন হয়।

বছরতারিখদিনছুটির
202117 মার্চবুধবারজাতির পিতার জন্মবার্ষিকী
202217 মার্চবৃহস্পতিবারজাতির পিতার জন্মবার্ষিকী
202317 মার্চশুক্রবারজাতির পিতার জন্মবার্ষিকী
202417 মার্চরবিবারজাতির পিতার জন্মবার্ষিকী
পূর্ববর্তী বছরের তারিখের জন্য দয়া করে পৃষ্ঠার নীচে স্ক্রোল করুন।

এই সরকারী ছুটির দিনে, বিভিন্ন সামাজিক-রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শেখে মুজিবের অবদান নিয়ে আলোচনা, সাংস্কৃতিক কার্যক্রম এবং অন্যান্য অনুষ্ঠান পরিকল্পনা করে। সকাল সাড়ে ৬টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উড়িয়ে দেওয়া হয় এবং ধানমন্ডি এলাকার বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল জাদুঘরে ৭টার সময় জাতির প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। ঐ দিন অন্যান্য সরকারী নেতারাও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। সকাল ১০ টার দিকে টুঙ্গিপাড়ার জাতির পিতার সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

শেখ মুজিব ১৯৪৮ সালে পূর্ব পাকিস্তান মুসলিম ছাত্র লীগের প্রধান সংগঠক ছিলেন। কারাগারে আটক থাকার সময় তিনি পূর্ব পাকিস্তানের আওয়ামী মুসলিম লীগের যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন। তিনি ১৯৫৩ সালে পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগের সাধারণ সম্পাদক হন এবং ১৯৬৬ সালে দলের সভাপতি নির্বাচিত হন।

১৯৬০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে, তাঁর রাজনৈতিক উত্থান ঘটে। তাঁর ছয় দফা কর্মসূচী উপস্থাপনের পর তাঁকে জেলে পাঠানো হয়েছিল, যেটি পূর্ব পাকিস্তানের (এখন “বাংলাদেশ”) স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠার নকশা হলে বিবেচিত হয়ে ছিলো। তিনি ১৯৬৯ সালে মুক্তি পান। ১৯৭০ সালে, তিনি পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে নির্বাচিত হন এবং পূর্ব পাকিস্তানের সংবিধানের কাঠামোর জন্য ছয় দফা কর্মসূচি ব্যবহার করার শপথ গ্রহণ করেন।

আগের বছরগুলি

বছরতারিখদিনছুটির
202017 মার্চমঙ্গলবারজাতির পিতার জন্মবার্ষিকী
201917 মার্চরবিবারজাতির পিতার জন্মবার্ষিকী
201817 মার্চশনিবারজাতির পিতার জন্মবার্ষিকী
201717 মার্চশুক্রবারজাতির পিতার জন্মবার্ষিকী